Online Train Ticket BD

আমার মতে, ট্রেন হচ্ছে সবচেয়ে নিরাপদ এবং কম খরুচে ভ্রমণসঙ্গী।বাসে গেলে যানজটসহ নানা ধরণের সমস্যায় পরতে হয় আর ভাড়াটাও তুলনামূলক একটু বেশীই!!প্রায় সকল রুটেই কম-বেশী ট্রেন চলাচল করে।আগে ট্রেনের টিকিট কাটার সমস্যার জন্য কেউ ট্রেনে যেতে চাইত না। কেননা অফিস,ক্লাস,কাজ ইত্যাদি ফেলে দীর্ঘসময় ধরে লাইনে দারিয়ে টিকিট কাটা সমস্যায় বটে। কিন্তু এখন অতি সহজেই বাসায় বসেই অনলাইনে টিকিট কাটা যায়!!

আগে অনলাইনে টিকিট কাটা গেলেও সিট দেয়া হত র‍্যান্ডমলি!তার মানে বাসের মত সিট সিলেকশন করা যেত না।কিন্তু এখন সেটিও করা যায়!!!সাধারণ ভাবে ১০ দিন পুর্বে টিকিট ছাড়া হয়।কিছু নির্দিষ্ট টিকিট ছাড়া হয় অফিসিয়াল ওয়েব সাইটে আর কিছু ছাড়া GPAY এর মাধ্যমে,আর বাকি টিকিট গুলো রেল স্টেশনের কাউন্টারে পাওয়া জায়।আপনার পছন্দমত সিট পেতে ৪-৫দিন আগেই যাত্রার টিকিট কেটে রাখুন।

OnlineTrain Ticket BD

OnlineTrain Ticket BD

অফিসিয়াল ওয়েব সাইট থেকে টিকিট কাটার নিয়মঃ ওয়েব সাইট থেকে টিকিট কাটতে প্রথমত আপনার এই লিংকে গিয়ে রেজিস্টার করতে হবে।তারপর আপনার ইমেইলে ভ্যালিডেশন মেইলের লিংকে ক্লিক করে ভেরীফাই করে নিতে হবে।

ভেরিফাই করার পর সাইন ইন করে নিতে হবে।তারপর Purchase Ticket অপশন থেকে ভ্রমনের তারিখ,স্টেশন ইত্যাদি ঠিক করতে হবে।পরের স্টেপে আপনাকে সিট প্লান দেয়া হবে এবং সেখান থেকে আপনি আপনার সিট সিলেকশন করতে পারবেন(৩দিন আগেই বুকিং দেয়ার ক্ষেত্রে নতুবা অটোম্যাটিক ভাবে সিট দেয়া হবে)।

শেষ স্টেপে আপনাকে পেমেন্ট করতে হবে।মাধ্যম গুলো হচ্ছেঃ DBBL Nexus/DBBL Mobile Banking/American Express/Visa or Master card।মনে রাখবেন যে ৭দিনের মাঝে একবারই আপনি আপনার কার্ড দিয়ে পেমেন্ট করে টিকিট কিনতে পারবেন।প্রতি ৭দিনে যদি একবারের বেশী পারচেজ করার চেষ্টা করেন তাহলে আপনাকে চার্জ করা হবে ঠিকই কিন্তু টিকিট কনফার্ম হবেনা।টিকিট কনফার্ম না হলে ৮কর্মদিবসের মাঝে আপনি রিফান্ড পেয়ে যাবেন।

Gpay এর মাধ্যমে টিকিট ক্রয়ের পদ্ধতিঃ খুব সহজেই Gpay এপের মাধ্যমে কাটতে পারবেন।এপটি এই লিংক থেকে ইনস্টল করে সেখানে TRAIN TICKET অপশন বাছাই করে সরাসরি টিকিট কেটে ফেলতে পারেন।আর GPAY ওয়ালেট রিফিল করতে পারবেন DBBL Rocket,AB BANK,IBBL IFIC ব্যাংকের মাধ্যমে খুব সহজেই! GPAY এর মাধ্যমে আপনি বিদ্যুৎ বিল,পানি বিল,রিচার্জ ইত্যাদিও করতে পারবেন।GPAY এর অন্যান্য সুবিধাগুলো জানতে এই আর্টিকেলটি দেখতে পারেন।

টিকিট চেকারকে GPAY এর ক্ষেত্রে ফোনের এস এম এস এবং ওয়েব সাইটের টিকিট কাটার ক্ষেত্রে প্রাপ্ত মেইল/এস এম এস দেখালেই হয়ে জায়।নতুন করে স্টেশন কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করার প্রয়োজন নেই।আপনি চাইলে মেইল কপি প্রিন্ট করতে পারেন তবে সেটার মুলত প্রয়োজন হয়না।তবে ভ্রমণের সময় সাথে নিজের আইডি কার্ড সাথে রাখবেন।অনেক সময় দেখতে চাওয়া হতে পারে।

Click Here to Leave a Comment Below 0 comments